পরকীয়া নিয়ে ঝগড়া, স্বামীর গোপনাঙ্গ কেটে ফেললো স্ত্রী

মাদারীপুর সদর উপজেলার মহিষেরচর গ্রামে রোববার ভোররাতে পরকীয়ার জের ধরে মো. রায়হান (২৮) নামের এক স্বামীর পুরুষাঙ্গ কেটে ফেলেছে স্ত্রী। উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। স্থানীয় ও হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, মাদারীপুর সদর উপজেলার পাঁচখোলা ইউনিয়নের মহিষেরচর গ্রামের ইউসুফ সরদারের মেয়ে কুনসুম আক্তারের সাথে দুই বছর পূর্বে বিয়ে হয় ফরিদপুর জেলার দয়ারামপুর গ্রামের জমির উদ্দিনের ছেলে মো. রায়হানের।

বিয়ের কিছুদিন পরে রায়হান জানতে পারে স্ত্রী কুনসুমের সাথে অন্য ছেলের সম্পর্ক আছে। এ বিষয়টি নিয়ে স্বামী-স্ত্রী’র মধ্যে মনোমালিন্য চলছিল। শনিবার ফরিদপুর থেকে রায়হানকে শ্বশুরবাড়ী ডেকে নিয়ে আসে স্ত্রী কুনসুম। রাতে দুজনে একত্রে

ঘুমিয়ে পড়ার পর ভোর রাত সাড়ে তিনটার দিকে রায়হান ঘুমিয়ে থাকলে স্ত্রী ধারালো অস্ত্র দিয়ে হঠাৎ করে পুরুষাঙ্গ কেটে ফেলে। এতে রায়হানের পুরুষাঙ্গের বেশির ভাগ অংশ কেটে যায়। সাথে সাথে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে এসে ভর্তি হন। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

মাদারীপুর সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত ডাক্তার মোস্তাফিজুর রহমান লেলিন বলেন, ‘ভোরে রায়হান নামের এক যুবক হাসপাতালে আসে পুরুষাঙ্গ কাটা নিয়ে। আমরা তার তাৎক্ষনিক চিকিৎসা দিয়ে হাসপাতালে ভর্তি করে দেই। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।’ মাদারীপুর সদর মডেল থানার ওসি মো. সওগাতুল আলম বলেন, ‘এ বিষয়ে থানায় কেউ অভিযোগ দাখিল করেনি। যদি ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তি অভিযোগ দেয় তা হলে আমরা আইনগত ব্যবস্থা নিব।’

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *