মরতে-মরতে হাতে লিখেছিলেন গাড়ির নম্বর! পুলি’শ সদস্যের বীরত্বে ধরা পড়ল অপরা’ধী

গত সপ্তাহে ভারতে দুই পুলি’শ সদস্যকে হ’ত্যা করে ছয় অপরাধী। কিন্তু মৃ’ত্যুর আগে এক পুলি’শ সদস্যের উপস্থিত বুদ্ধির কারণেই ধরা পড়েছে ওই অপ’রাধীরা। ভারতের হরিয়ানায় এ ঘটনা ঘটে। পুলি’শের কনস্টেবল রবীন্দর সিং (২৩) নামের ওই তরুণের এমন কাজে প্রশংসা করছেন সবাই।

হরিয়ানার পুলি’শ প্রধান মনোজ যাদব জানান, কনস্টেবল রবীন্দর সিং (২৩) মা’রা যাওয়ার আগে অপরা’ধীদের গাড়ির নম্বর লিখে রেখেছিলেন নিজের হাতের মধ্যে। সেই সূত্রেই ধরা পড়ে তারা।

মনোজ যাদব বলেন, এটা পুলি’শের কাছে প্রাথমিক কর্তব্য। আমাদের সাহসী কন’স্টেবল রবীন্দর সিং নিজের জীবন চলে যাওয়ার আগেও সেই দায়িত্ব পালন করে গেছেন। নিজের হাতে অপরা’ধীদের গাড়ির নম্বর লিখে রেখেছিলেন। ময়’নাত’দন্তের সময় সেই বিষয়টি প্রকাশ্যে আসে।

ওই কনস্টে’বলের লিখে যাওয়া গাড়ির নম্বরের সূত্র ধরে পুলি’শ কাপতান সিং (৪৩) ও রবীন্দরের খু’নিদের ধরে ফেলেন। গত সপ্তাহে ওই দুই পুলি’শ সদস্যের র’ক্তাক্ত দেহ উ’দ্ধার হয় এক সুইমিংপুল থেকে। প্রাথমিকভাবে পুলি’শ জানতে পেরেছিল, বুটানা থানার কাছে সোনিপথ-ঝিন্দ রোডে গাড়ি পার্ক করে মদ খাচ্ছিল অপরা’ধীরা। তাতে বাধা দিতে গিয়েই নিহ’ত হন ওই দুই পুলি’শ সদস্য।

দুই পুলি’শ সদস্যকে মেরে অপরা’ধীরা চলে গিয়েছিল ঝিন্দের দিকে। এর পরই তদ’ন্তে নামে পুলি’শ। কিন্তু কিছুতেই সূত্র মিলছিল না। তখনই কনস্টে’বল রবীন্দরের হাতে ওই গাড়ির নম্বর পায় পুলি’শ। সেই সূত্রেই ধরা পড়ে পাঁচ অপরা’ধীর। পুলি’শের সঙ্গে অ্যানকাউন্টারে এক অপরা’ধীর মৃ’ত্যুও হয়েছে।

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *