Home Blog

সুন্দরী নারীদের ব্য’বহার করে ইস’রায়েলের নয়া কৌ’শল

তরুণী, আবেদনময়ী, যু.দ্ধে যেতে প্রস্তুত। তারা সবাই ইসরায়েল ডিফেন্স ফোর্সেসের (আইডিএফ) সদস্য। কিন্তু তাদের কাজ কার্যত হচ্ছে টিকটিকে ভিডিও পোস্ট করা। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সমর্থন আদায় এবং জাতীয়তাবাদ ছড়িয়ে দিতে এই তরুণীদের ব্যবহার করা হচ্ছে। খবর নিউইয়র্ক পোস্টের।

গা.জা.য় নিরীহ মানুষের ওপর ১১ দিন ধরে তা.ণ্ড.ব চালানোর পর হা.মাসের সঙ্গে এখন যু.দ্ধ.বি.র.তি পালন করছে ইসরায়েল। ওই সহিংসতায় ২৪০ জনের বেশি ফিলিস্তিনির মৃ.ত্যু হয়েছে। মারা গেছে ১৩ ইসরায়েলিও। কিন্তু যু..বির.তির এই সময়ে অন্য এক ল.ড়া.ই শুরু করেছে ইসরায়েল। দেশটির নাগরিকদের মাঝে যু.দ্ধ উ.ত্তে.জনা ছড়িয়ে দিতে নারীদের ব্যবহার করছে তারা।

ইসরায়েলি হামলায় ফিলিস্তিনিদের পালিয়ে যাওয়ার দৃশ্যের বিপরীতে সম্পূর্ণ চিত্র তুলে ধরেছে আইডিএফ। তারা সামরিকপ.ন্থী বিভিন্ন কন্টেন্ট প্রকাশ করছে। যেখানে দেখা যাচ্ছে, সামরিক পোশাক পরে গা.জা সী.মা.ন্তে প্রিয়জনদের সঙ্গে দেখা করছে সৈন্যরা।
সুন্দরী নারীদের ব্যবহার করে ইসরায়েলের নয়া কৌশল
সুন্দরী নারীদের ব্যবহার করে ইসরায়েলের নয়া কৌশল

ডিউক বিশ্ববিদ্যালয়ের কালচারাল অ্যানথ্রপলজির অধ্যাপক রেবেকা স্টেইন বলেন, ইসরায়েলে সুন্দরী নারীদের সামরিক পোশাক পরিয়ে তাদের জাতীয়তাবাদের প্রতীক হিসেবে তুলে ধরার দীর্ঘ ইতিহাস রয়েছ। তিনি বলেন, নিজের ডিজিটাল প্লাটফর্মের চাহিদা অনুযায়ী নতুন পদ্ধতি ব্যবহার করছে সেনাবাহিনী।

ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর একটা বড় অংশের বয়স ১৮-২১ বছর। তাই এসব সৈন্যদের উ.দ্বু.দ্ধ করতে এই ‘থা.র্স্ট ট্রা.প’ ব্যবহার করছে আইডিএফ। কেননা প্রগতিশীল তরুণদের মধ্যে ফিলিস্তিনপন্থী মনোভাব থাকলেও তারা যাতে ইসরায়েলি সেনাদের প্রতি আকর্ষণ অনুভব করে সেটাই অর্জন করতে চাচ্ছে আইডিএফ।

আগামীকাল থেকে চলবে বাস-ট্রেন-লঞ্চ

0

স্বাস্থ্যবিধি মেনে আসন সংখ্যার অর্ধেক যাত্রী নিয়ে আন্তঃজে’লাসহ সব ধরনের গণপরিবহন চলার অনুমতি দিয়েছে সরকার।

করো’না ভাই’রাস সংক্রমণ রোধে রোববার (২৩ মে) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ চলমান বিধিনিষেধ আরেক দফা বৃদ্ধি করার প্রজ্ঞাপনে গণপরিবহন চলার অনুমতি দেয়।

এতে বলা হয়েছে, আন্তঃজে’লাসহ সব ধরনের গণপরিবহন আসন সংখ্যার অর্ধেক যাত্রী নিয়ে চলাচল করতে পারবে। তবে অবশ্যই যাত্রীসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে মাস্ক পরিধানসহ স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের একজন কর্মক’র্তা গণমাধ্যমকে বলেন, গণপরিবহন চলাচলের বিষয়টি সোমবার (২৪ মে) থেকে কার্যকর হবে। দূরপাল্লার বাস, লঞ্চ এবং ট্রেন সোমবার থেকে চালুর অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, করো’না ভাই’রাস জনিত রোগ কোভিড-১৯ সংক্রমণের বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনা করে বিধিনিষিধের সময়সমীমা ২৩ মে মধ্যরাত থেকে ৩০ মে মধ্যরাত পর্যন্ত বৃদ্ধি করা হলো।

চলতি বছর করো’না সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ায় গত ৫ এপ্রিল থেকে লকডাউন ঘোষণা করা হয়। ১৩ এপ্রিল পর্যন্ত ঢিলেঢালা লকডাউন হলেও সংক্রমণ আরও বেড়ে যাওয়ায় ১৪ এপ্রিল থেকে ‘কঠোর লকডাউন’ ঘোষণা করে সরকার।

সবশেষ তা ১৬ মে পর্যন্ত বাড়ানো হয়। পরে সিটি করপোরেশন এলাকায় গণপরিবহন চলাচলের অনুমতি দেওয়া হয়। তবে দূরপাল্লার বাস, লঞ্চ এবং ট্রেন চলাচল বন্ধ ছিল। ঈদেও লঞ্চ-ট্রেন এবং দূর পাল্লার বাস বন্ধ রাখা হয়েছিল।

যে পাঁচ’টি কথা বাবা-মাকে কখনোই বলা উচিত নয়..!

0

প্রত্যেক বাবা-মা’র সবচেয়ে বড় সম্পদ হচ্ছে তার নিজ স’ন্তান। তাইতো নিজে’র সর্বস্ব দিয়েই স’ন্তানকে বড় করে তোলেন বাবা-মা। যদিও স’ন্তানকে মানুষ করার ধ’রনটা সবার এক রকম হয় না।

সন্তাকে ভালোভাবে মানুষ ক’রতে যেয়ে ভালোবাসার পাশাপাশি ব’কাবকিও ক’রতে হয় মা-বাবাকে। তবে যখন স’ন্তান বড় হয়ে যায় তখন একটু একটু করে বাবা-মা’র স’ঙ্গে ত’র্ক করাও শুরু করে।

তাই এই সময়টাতে এমন কিছু কথা স’ন্তানরা বলেন, যা বাবা-মাকে কখনোই বলা উচিত নয়। এসব কথা বাবা- মাকে কেবল ক’ষ্টই দেয়। চলুন তবে জে’নে নেয়া যাক সেই কথাগুলো স’স্পর্কে-

#‘আমি তোমাকে ঘৃ’ণা করি’- এই কথাটা যেকোনো অভিভাবকের কাছে সবচেয়ে বড় ক’ষ্টের। স’ন্তান যত বড়ই হয়ে যাক না কেন, এই কথাটি বলা একদমই ঠিক নয়।

হয়তো স্নেহের বহিঃপ্র’কাশটা একেকজনের ক্ষেত্রে একেক রকম হয়ে থাকে। কিন্তু এটা কখনো ভাবা উচিত নয় যে, অন্য স’ন্তানকে তিনি বেশি ভালবাসেন এবং সেটা ভেবে তাকে কটু কথা বলা একেবারেই উচিত নয়।

# ‘তোম’রা যদি আমা’র বাবা-মা না হতে তবে ভালো হতো’- সম্ভবত প্রথম কথাটির চেয়েও এই কথাটি অনেক বেশি ক’ষ্ট দেয় অভিভাবকদের।

# ‘তোমাকে এখন সময় দিতে পারব না’- বাবা-মায়েরা স’ন্তানকে বড় করে তোলার সময়ে অনেক আত্মত্যা’গ করেন। কিন্তু উল্টোটা সব সময়ে দেখা যায় না। যদি ব্যস্ততার কারণেও ব’য়স্ক অভিভাবককে সময় দিতে না পারা যায়, তাহলেও এভাবে কথা বলা কখনো শোভন নয়।

শেষবারের মতো দেখা হলো না কবরী চাচির সঙ্গে: শামীম ওসমান

0

বরেণ্য অভিনেত্রী সারাহ বেগম কবরীর মৃ’ত্যু’তে গ’ভীর শো’ক ও দুঃ’খ প্র’কাশ করেছেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ শামীম ওসমান। তিনি ম’রহু’মার আ’ত্মা’র মাগফেরাত কা’মনা করেছেন এবং তাঁর শো’কসন্ত’প্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবে’দনা জানিয়েছেন।

শামীম ওসমান বলেন, সারাহ বেগম কবরী একজন কিংবদন্তি অভিনেত্রী ছিলেন এবং নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্যও ছিলেন। মহান মু’ক্তিযু’দ্ধে তাঁর ব্যাপ’ক ভূমিকা ছিল। সম্পর্কে তিনি আমার চাচি ছিলেন। গত ২-৩ মাস আগে ওনার (কবরী) সঙ্গে আমার কথা হয়েছিল। তিনি বলেছিলেন, ‘শামীম বাসায় আসো। তোমার সঙ্গে আমার কথা আছে। আমি বলেছি, চাচি আসব। ক’ষ্টে’র বিষয় আমি কথা দিয়েও কথা রাখতে পারিনি’।

করোনার কারণে চাচির বাসায় যাওয়া হয়নি শামীম ওসমানের। শেষবারের মতো দেখাটাও হলো না চাচির সঙ্গে। শামীম ওসমান বলেন, ‘তিনি অ’সুস্থ থাকা অবস্থায় আমি নামাজ পড়ে ওনার জন্য দোয়া করেছি।

আমি অ’ত্য’ন্ত ম’র্মাহ’ত তার মৃ’ত্যু’তে। চাচির জন্য আমি সবার কাছে দোয়া প্রার্থনা করছি। মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিন কবরী চাচিকে জান্নাতুল ফেরদাউস নসিব করুক’।

চার ট্রাক করোনা শনাক্তের নকল কিট জব্দ: ৯ জন রিমান্ডে

0

করোনা শনাক্তের নকল কিট ও রি-এজেন্ট জালিয়াতির মাধ্যমে নতুন করে মেয়াদ বাড়িয়ে বিক্রির অভিযোগে গ্রেফতার তিন প্রতিষ্ঠানের নয়জনের তিনদিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

শনিবার ঢাকা মহানগর হাকিম মোহাম্মদ জসিমের আদালত শুনানি শেষে এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

রিমান্ডে যাওয়া আসামিরা হলেন- বায়োল্যাব ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেডের স্বত্ত্বাধিকারী মো. শামীম মোল্লা (৪০), ব্যবস্থাপক মো. শহীদুল আলম (৪২), প্রধান প্রকৌশলী আবদুল্লাহ আল বাকী ছাব্বির (২৪), অফিস সহকারী মো. জিয়াউর রহমান (৩৫), হিসাবরক্ষক মো. সুমন (৩৫), অফিস ক্লার্ক ও মার্কেটিং অফিসার জাহিদুল আমিন পুলক (২৭), সার্ভিস ইঞ্জিনিয়ার মো. সোহেল রানা (২৮), এক্সন টেকনোলজিস্ট অ্যান্ড সার্ভিসেস লিমিটেডের এমডি মো. মাহমুদুল হাসান (৪০), হাইটেক হেলথ কেয়ার লিমিটেডের এমডি এস এম মোজফা কামাল (৪৮)।

এদিন আসামিদের ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে পুলিশ। এসময় মোহাম্মদপুর থানার বিশেষ ক্ষমতা আইনের মামলার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য তাদের দশদিনের রিমান্ডে নিতে আবেদন করে পুলিশ। শুনানি শেষে আদালত তাদের তিনদিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, নকল টেস্ট কিটগুলো সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান সরবরাহ করতো চক্রটি। এছাড়া তাদের কাছে মেয়াদোত্তীর্ণ প্রেগন্যান্সি টেস্ট কিটও পাওয়া গেছে। অসাধু প্রতিষ্ঠান অনুমোদনহীন মেডিকেল ডিভাইস আমদানি, ভেজাল ও মেয়াদোত্তীর্ণ করোনার টেস্টিং কিট ও রি-এজেন্টসহ অন্যান্য রোগ নির্ণয়ে ব্যবহৃত বিভিন্ন রোগের টেস্টিং কিট ও রি-এজেন্ট মজুত এবং বাজারজাত করছে- এমন গোপন তথ্যের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার বিকেল থেকে শুক্রবার সকাল পর্যন্ত রাজধানীর মোহাম্মদপুরের লালমাটিয়া ও বনানীতে টানা অভিযান পরিচালনা করে মূলহোতাসহ ৯ জনকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। এসময় তাদের কাছ থেকে প্রায় চার ট্রাক অনুমোদনহীন, মেয়াদোত্তীর্ণ ও ভেজাল টেস্ট কিট, রি-এজেন্ট জব্দ করা হয়।

শাড়ি-ব্লাউজ পরতেই হয়ে গেলেন নারী, পুরুষকে করলেন বিয়ে

কবিরাজ পরিচয়ে একেক সময় একেক এলাকায় যাওয়াই আলতাফ আলীর কাজ। তিন মাস আগে যান একটি এলাকায়। সেখানে মাঝে মধ্যেই শাড়ি পরে ঘোরাঘুরি করতেন। বন্ধ্যাত্ব নারীদের সন্তান হওয়ার ঝাড়ফুঁক দিয়ে থাকতেন বিভিন্ন বাড়িতে। এর মধ্যেই এক ছেলেকে ভালো লাগে তার। একপর্যায়ে নারী সেজে সেই ছেলেকে বিয়ে করেন ৩৫ বছর বয়সী এই ভণ্ড কবিরাজ।

বুধবার অদ্ভুত ঘটনাটি ঘটেছে টাঙ্গাইলের সখীপুর উপজেলার দাড়িয়াপুর ফালু চাঁনের মাজারপাড় এলাকায়। ভণ্ড কবিরাজ আলতাফের বাড়ি জেলার ঘাটাইল উপজেলার জামুরিয়া গ্রামে। তার বাবার নাম আব্দুল কাদের।

স্থানীয়রা জানায়, প্রায় তিন মাস আগে নিজেকে কবিরাজ পরিচয় দিয়ে দাড়িয়াপুর মাজারপাড় এলাকায় আসেন আলতাফ। তিনি মাঝে মধ্যে শাড়ি পরেও এলাকায় ঘোরাফেরা করতেন। নারীদের সন্তান হওয়ার ঝাড়ফুঁক দেয়ার কথা বলে বিভিন্ন বাড়িতে তিন মাস ধরে থাকছেন। এর মধ্যে একই এলাকার কৃষক রিয়াজ উদ্দিনের ছেলে জুবায়ের হোসেনের সঙ্গে তার সখ্যতা গড়ে ওঠে। একপর্যায়ে টাকার প্রলোভন দেখিয়ে জুবায়ের ও তার পরিবারকে কবিরাজ আলতাফ বলেন- ‘আমি রাত ১২টার পর মেয়ে মানুষে রূপান্তরিত হবো, ‘আমাকে বিয়ে করলে প্রচুর সম্পত্তির মালিক হবেন।’

কবিরাজের টাকার লোভে পড়ে যান জুবায়েরের পরিবারের লোকজন। পরে তারা মঙ্গলবার রাতে নিজেদের বাড়িতে জুবায়ের ও আলতাফের বিয়ের প্রস্তুতি নেন। বুধবার সকালে খবরটি ছড়িয়ে পড়লে উত্তেজিত হয়ে কবিরাজ আলতাফকে ধরে পরনের শাড়ি-ব্লাউজ খুলে গণধোলাই দেন আশপাশের লোকজন। পরে তাকে উদ্ধার করেন দাড়িয়াপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনসার আলী আসিফ, সাবেক চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম শামীম ও সানোয়ার হোসেন মাস্টার।

এক লাখ টাকা দেনমোহরে দাড়িয়াপুর ইউনিয়নের কাজি মাসুদ রানা এ বিয়ে পড়িয়েছেন বলে দাবি স্থানীয়দের। তবে বিষয়টি অস্বীকার করেছেন কাজি মাসুদ রানা।

তিনি বলেন, একটি বিয়ের রেজিস্ট্রি করতে হবে বলে আমাকে ওই এলাকায় যেতে বলা হয়েছিল। ওই বাড়িতে গিয়ে মেয়ের (পাত্রীর) জাতীয় পরিচয়পত্র দিতে বলি। পরিচয়পত্র দিতে না পারায় আমি সঙ্গে সঙ্গে ফিরে এসেছি। রেজিস্ট্রি বা বিয়ে পড়ানোর তো কোনো প্রশ্নই ওঠে না। কিছু লোক আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক প্রচারণা চালাচ্ছে।

কবিরাজ আলতাফের পরিবারের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তার ভাতিজা ইয়ামিন বলেন, আলতাফ আলী আমাদের এলাকায়ও (ঘাটাইল) কবিরাজি করতেন। কিন্তু তিনি একটি ছেলেকে বিয়ে করবেন এটা মেনে নিতে পারছি না।

সখীপুর থানার এসআই ওসমান বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছার পর স্থানীয়রা ওই কবিরাজকে হিজড়া দাবি করেন। পরে স্থানীয়দের অনুরোধেই তাকে এলাকা থেকে তাড়িয়ে দেয়া হয়েছে।

বাঁশখালীতে পুলিশ-শ্রমিক সংঘর্ষে নিহত চার

0

চট্টগ্রামের বাঁশখালীতে কয়লা বিদ্যুৎকেন্দ্রের শ্রমিকদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষে চার শ্রমিক নিহত এবং আহত হয়েছেন ২৫ জন।
শনিবার দুপুর পৌনে ১২টার দিকে উপজেলার গণ্ডামারা ইউনিয়নের পূর্ব বড়ঘোনা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহতদের উদ্ধার করে বাঁশখালী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

নিহতরা হলেন- আহমদ রেজা, রনি হোসেন, শুভ ও মো. রাহাত।

স্থানীয়রা জানান, বেতন-ভাতা নিয়ে শ্রমিকদের সঙ্গে বিরোধ চলছিল নির্মাণাধীন ওই বিদ্যুৎকেন্দ্র কর্তৃপক্ষের। সকালে শ্রমিকরা বিক্ষোভের চেষ্টা করলে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর বিদ্যুৎকেন্দ্রের ভেতর আগুন ধরিয়ে দেন বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা।

বাঁশখালী থানার ওসি (তদন্ত) আজিজুল ইসলাম বলেন, শ্রমিকদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষে চারজন নিহতের খবর পেয়েছি।

পরকীয়ার জেরে স্ত্রীকে ছুরিকাঘাত করে স্বামীর আ’ত্মহ’ত্যা

পরকীয়া সম্পর্কের জেরে স্ত্রীকে ছুরিকাঘাত করে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন রাজু মল্লিক (৪৫) নামে এক ব্যক্তি। সোমবার (২৯ মার্চ) সন্ধ্যায় ভারতের পশ্চিমবঙ্গের হুগলী জেলার চুঁচুড়া চকবাজার এলাকার শান্তিপল্লীতে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানিয়েছে, রাজু মল্লিক তার প্রতিবেশি এক ভাবীর সঙ্গে পরকীয়ার সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন। বিষয়টি তার স্ত্রী রিঙ্কু মল্লিক জেনে যান। এনিয়ে গত দুই বছর রাজু-রিঙ্কুর সংসারে অশান্তি চলছিল। একপর্যায়ে স্বামীর সঙ্গে বনিবনা না হওয়ায় বাবার বাড়ি চলে যান রিঙ্কু। একটি ডায়াগনস্টিক সেন্টারে কাজ নেন তিনি।

তবে রিঙ্কুকে রাস্তায় বিভিন্নভাবে উত্যক্ত করতেন রাজু। সোমবার স্বামীর বাড়ির পাশে শান্তিপল্লীতে এক রোগীর রক্ত সংগ্রহ করতে যান রিঙ্কু। এসময় তার স্বামী রাজু তার ওপর হামলা চালায়। রাস্তায় ফেলে তাকে ধারালো ছুরি ও ক্ষুর দিয়ে এলোপাতাড়ি আঘাত করে। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়।

ঘটনার পর রাজু নিজের ঘরে ঢুকে দরজা বন্ধ করে দেন। কিছুক্ষণ পর তার রাজুর ঘরের দরজা ভেঙে ফেলে ক্ষুব্ধ প্রতিবেশীরা। তবে দরজা ভেঙে ভেতরে ঢুকে দেখা যায়, রাজু ঘরের সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ঝুলছেন। পরে তারা পুলিশে খবর দিলে রাজুর মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

রাজু-রিঙ্কু দম্পতির একমাত্র সন্তান জানান, অনেক দিন ধরে তার বাবা-মায়ের ঝগড়া চলছিল। কিছুদিন আগে তারা দাদার বাড়ি চলে যায়। তবে কাজ করতে বাইরে বের হলেই নানাভাবে তার মাকে উত্যক্ত করত বাবা রাজু।

সানী-মৌসুমীর ছেলে ফারদীনের বিয়ে সম্পন্ন

0

পা’রিবারিকভাবে সম্পন্ন হয়েছে তারকা দম্পতি ওমর সানী-মৌসুমীর ছেলে ফারদীন এহসান স্বাধীনের বিয়ে। গত শুক্রবার (২৬ মার্চ) সাদিয়া রহমান আয়েশাকে বিয়ে করেন স্বাধীন। সোমবার (২৯ মার্চ) সন্ধ্যায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ওমর সানী।

মোবাইলে তিনি বলেন, ২৬ মার্চ আমার ছেলের আকদ সম্পন্ন হয়েছে। আকদ করে আমরা বউ নিয়ে এসেছি। ওদের জন্য দো’য়া করবেন। এরপর নিজের ফেসবুকে একটি ভিডিও বার্তা দিয়েছেন এক সময়ের জনপ্রিয় এ চিত্রনায়ক।

তিনি বলেছেন, সবাইকে আসসালামু আলাইকুম। নি’রাপদে আছেন, নি’রাপদে থাকবেন। স্বাধীনতার পঞ্চাশ বছর হয়ে গেল কয়েকদিন আগে। আমাদের খুব ইচ্ছা ছিল ফারদীনের বিয়ে ২৬ তারিখে হবে।

আ’ল্লাহপাক সেটা কবুল করেছেন। সাদিয়া রহমান আয়েশার স’ঙ্গে আমার ছেলের বিয়ে হয়েছে। আ’ল্লাহর কাছে শুকরিয়া একজন ভালো মনের অধিকারিণী আমার ঘরের বউ হয়ে এসেছে। আপনারা সবাই ফারদীন-আয়েশার জন্য দোয়া করবেন, আমার পরিবারের জন্য দোয়া করবেন।

ভিডিও বার্তায় ওমর সানী আরও জানান, ৯ এপ্রিল ফারদীন-আয়েশার বিবাহত্তোর সংবর্ধনা হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু আয়েশার বাবার অ’সুস্থতার কারণে সেটি পিছিয়ে গেছে। ঈদের পরে তা হওয়ার কথা রয়েছে।

এদিকে স্ত্রীর স’ঙ্গে ফেসুবকে একাধিক ছবি শেয়ার করেছেন ফারদীন এহসান স্বাধীন। পাশাপাশি যুক্ত করেছেন লাইফ ইভেন্টস। সাদিয়া রহমান আয়েশা কানাডা প্রবাসী, জন্মসূত্রে বাংলাদেশি।

বাড়ি কুমিল্লায় হলেও পড়াশোনা আর বেড়ে ওঠা কানাডায়। কয়েক মাস আগে স্বাধীনের সঙ্গে পরিচয় আয়েশার। পরিচয় থেকে বন্ধুত্ব, ভালো লাগা। সেই ভালো লাগার সূত্র ধরেই দুই পরিবারের অলোচনায় বিয়ে হয়।

এর আগে ছেলের বিয়ে প্রসঙ্গে মৌসুমী জানান, সময়ের সঙ্গে নিজেকে বদলে নিতে পারাটা সবচেয়ে বড় স্মার্টনেস। আমাদের ছেলে বড় হচ্ছে। তাঁর জীবন গুছিয়ে দেওয়াটা আমাদের দায়িত্ব।

সে নিজের মতো করে নানা রকম কাজ করছে। তা ছাড়া জীবনটা গুছিয়ে দিতে একদিন না একদিন তাঁকে বিয়েও করাতে হবে। ছেলের ভালো লাগার মতো একটা মেয়েকে বউ হিসেবে পেলে তো মা হিসেবে নিজেরও ভালো লাগবে।মেয়েটা শুধু আমাদের স’ন্তানের নয়, আমাদেরও দারুণ পছন্দ হয়েছে। ওরা দুজন যেন ভালো থাকে, মা–বাবা হিসেবে আমাদের সেই চেষ্টাই থাকবে।’

আজ ৩০/০৩/২০২১ তারিখ দিনের শুরুতেই দেখে নিন আজকের টাকার রেট কত !

আজ ৩০/০৩/২০২১ তারিখ দিনের শুরুতেই দেখে নিন আজকের টাকার রেট কত !

MYR (মালয়েশিয়ান রিংগিত) = 20.99 ৳

SAR (সৌদি রিয়াল) = 22.64 ৳

SGD (সিঙ্গাপুর ডলার) = 63.77 ৳

AED (দুবাই দেরহাম) = 23.09 ৳

KWD (কুয়েতি দিনার) = 277.95 ৳

USD (ইউএস ডলার) = 84.82 ৳

OMR (ওমানি রিয়াল) = = 220.60 ৳

QAR (কাতারি রিয়াল) = 23.30 ৳

BHD (বাহরাইন দিনার) = 225.59 ৳

EUR (ইউরো) = 103.06 ৳

MVR (মালদ্বীপিয়ান রুপিয়া) = 5.41 ৳

IQD (ইরাকি দিনার) = 0.071 ৳

ZAR (সাউথ আফ্রিকান রেন্ড) = 5.24 ৳

GBP (ব্রিটিশ পাউনড) = 110.64 ৳

প্রবাসী ভাইদের উদ্দেশে বলছি আপনারা বিনিময় মূল্য (রেট) জেনে দেশে টাকা পাঠাতে পারেন। সে ক্ষেত্রে আমাদের ওয়েব সাইট বা আপনার নিকটস্থ ব্যাংক হতে টাকার রেট জেনে নিতে পারেন। যখন বৈদেশিক মুদ্রার রেট বৃদ্ধি হয় তখন দেশে বৈদেশিক মুদ্রা পাঠালে বেশি টাকা পেতে পারেন।

সবাই সবসময় মনে রাখবেন, যেকোন সময় মুদ্রার রেট উঠা-নামা করতে পারে। নতুন নতুন খবর পেতে সবসময় সঙ্গে থাকুন।যে কোন সময় টাকার রেট উঠা নামা করতে পারে।প্রতিদিন আপডেট পেতে লাইক, কমেন্ট ও শেয়ার করুন।।