Home Blog Page 3

করোনা: দুই সপ্তাহের জন্য ১৮ দফা জরুরি নির্দেশনা সরকারের

0

কোভিড-১৯ সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ প্রতিরোধে দুই সপ্তাহের জন্য ১৮টি সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

সোমবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মুখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে এ কথা বলা হয়েছে।

সিদ্ধান্ত অনুযায়ী উচ্চ সংক্রমণ যুক্ত এলাকায় সব ধরনের জনসমাগম নিষিদ্ধ করা হয়েছে। সব ধরনের জনসমাগম (সামাজিক, রাজনৈতিক, ও ধর্মীয় অন্যান্য) সীমিত করতে হবে।

রাত ১০টার পর জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বাইরে বের হওয়া নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। গণপরিবহনে ধারণক্ষমতার অর্ধেক যাত্রী বহনেরও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

জরুরি সেবা ছাড়া সরকারি-বেসরকারি সব অফিস, প্রতিষ্ঠান ও শিল্প কল-কারখানা অর্ধেক (৫০ ভাগ) জনবল দিয়ে পরিচালিত করতে হবে।

বিদেশ থেকে আসা যাত্রীদের ১৪ দিনের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে (হোটেলে নিজ খরচে) থাকতে হবে।

দেশে প্রথম করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে গত বছরের ৮ মার্চ। এর ১০ দিন পর প্রথম মৃত্যু হয়। সম্প্রতি করোনায় সংক্রমণ বেড়েছে।

গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের পুত্রবধূ নিপুণ রায় রিমান্ডে

0

বাসে আগুন দেওয়া ও নাশকতার পরিকল্পনার অভিযোগে গ্রেফতার বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট নিপুণ রায় চৌধুরীর ও হাজী আরমান হোসেনের ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। আজ সোমবার (২৯ মার্চ) বিকেলে ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মামুনুর রশীদ এ আদেশ দেন।

মামলাটির তদন্ত কর্মকর্তা হাজারীবাগ থানার পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) সুদীপ কুমার বিশ্বাস তাদের আদালতে হাজির করে সাতদিনের রিমান্ড আবেদন করেন। এ সময় আসামি পক্ষের আইনজীবীরা রিমান্ড বাতিলের আবেদন করেন। অপরদিকে রাষ্টপক্ষ বিরোধিতা করে। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে বিচারক রিমান্ডের এ আদেশ দেন।

এর আগে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের পুত্রবধূ এবং বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট নিপুণ রায় চৌধুরীকে রাজধানীর রায়েরবাজারের বাসা থেকে আটক করা হয়েছে। রবিবার (২৮ মার্চ) বিকাল চারটার দিকে ডিবি পুলিশ তাকে আটক করে। গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে নিপুণ রায়ের শশুর বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়।

তবে কী কারণে তাকে আটক করা হয়েছে সে বিষয়ে তিনি কিছু বলতে পারেননি তিনি। এর আগে নিপুণ রায় চৌধুরীর একটি অডিও বার্তা ফাঁস হয়। সেখানে তাকে বলতে শোনা গেছে, পরিচিতি একজনকে হরতালের দিন বাসে আগুন দেওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন।

মামুনুল হককে গ্রে’ফতার করার আল্টিমেটাম

0

আগামী ৪ এপ্রিলের মধ্যে হেফাজতের কেন্দ্রীয় নেতা মাওলানা মামুনুল হককে গ্রেফতার করার আল্টিমেটাম দিয়েছে জাতীয় ওলামা মাশায়েখ শেখ ঐক্য পরিষদ। ব্রাহ্মণবাড়িয়া হ’রতালে ভা’ঙচুর ও অ’সংযোগের অভিযোগে এই আল্টিমেটাম দেয়া হয়। আজ সোমবার (২৮ মার্চ) রাজধানীর প্রেসক্লাবে জাতীয় ওলামা মাশায়েখ শেখ ঐক্য পরিষদ পক্ষ থেকে এক মানববন্ধনে এ আল্টিমেন্টাম দেন পরিষদের নেতাকর্মীরা।

হ’রতালে ভা’ঙচুরের কারণে ধ্বং’সস্তুপে পরিণত হয়েছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া। ল’ণ্ড’ভণ্ড হয়ে গিয়েছে বিভিন্ন স্থাপনা। পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে সরকারি বেসরকারি অন্তত অর্ধশত স্থাপনা। হেফাজতের দেওইয়া আগুনে পুড়ে গেছে রেলওয়ে স্টেশনের সার্ভার রুম। যার ফলে সেখানে ট্রেন থামছে না। রেলওয়ের স্লিপার তুলে ফেলা হয়েছে। উপজেলা ভূমি অফিসসহ বেশ কয়েকটি সরকারি দপ্তর এখন অনেকাংশেই পরিত্যক্ত।

এর আগে হেফাজতে ইসলামের ডাকা সকাল-সন্ধ্যা হরতাল চলাকালে রবিবার (২৮ মার্চ) দুপুর পৌনে ১টায় রাজধানীর বাইতুল মোকাররমের উত্তর গেটে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য দিয়েছেন হেফাজতে ইসলামের ঢাকা মহানগরের সহসভাপতি ও খেলাফত মজলিশের শায়খুল হাদিস মামুনুল হক। তিনি বলেন, আর যদি আমার কোনও ভাইকে হ’ত্যা করা হয়, যদি গু’লি চলে, আর যদি কোনও ভাইয়ের র’ক্ত ঝরে, তাহলে টেকনাফ থেকে তেঁতুলিয়া পুরো বাংলাদেশ অচল করে দেওয়া হবে।

মামুনুল হক বলেন, আমার শান্তিপ্রিয় ভাইদের ওপর পুলিশ-বিজিবি নির্বিচারে গু’লি ছুড়েছে। মধুগড়ের বর্ষীয়ান আলেম হেফাজতের নায়েবে আমীর মাওলানা আব্দুল হামিদ গু’লিবিদ্ধ হয়েছেন। এটা ক’লঙ্ক’জনক অধ্যায় রচনা করল। এভাবে গু’লি করে হেফাজতকে দমানো যাবে না, বরং আপনি আপনার গদি টেকাতে পারবেন না। তিনি আরও বলেন,আমরা শান্তিশৃঙ্খলার সঙ্গে কর্মসূচি পালন করছি। র’ক্ত ঝড়িয়ে রাজপথ থেকে হেফাজত কর্মীদের সরানো-দমানো যাবে না।

এর আগে শুক্রবার (২৬ মার্চ) জুমার নামাজের পর চট্টগ্রামের হাটহাজারী মাদ্রাসার ছাত্রদের বিক্ষোভ মিছিলকে কেন্দ্র করে পুলিশের সঙ্গে সংঘ’র্ষে ঘটনা ঘটে। মাদ্রাসা ছাত্রদের অভিযোগ, শান্তিপূর্ণ মিছিলে বিনা উ’স্কানিতে পুলিশ তাদের ওপর চড়াও হয় এবং এলোপাথাড়ি গু’লি ব’র্ষণ করেছে। এ সময় চট্টগ্রাম-খাগড়াছড়ি মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে পড়ে। প্রত্যক্ষদর্শী, থানা পুলিশ ও মাদ্রাসা শিক্ষার্থীরা জানান, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বাংলাদেশ সফরের প্রতিবাদে শুক্রবার জুমার নামাজের পর দুপুর আড়াইটার দিকে হাটহাজারী মাদ্রাসার ছাত্ররা মাদ্রাসার সামনে থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে। মিছিলটি মাদ্রাসা এলাকা অতিক্রম করার সময় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের বাঁধা এড়িয়ে হাটহাজারী থানার সমানে গেলে তারা ফের বাঁধার সম্মুখীন হয়।

এ সময় উত্তেজিত মাদ্রাসাছাত্ররা থানা কার্যালয় লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করতে শুরু করে। এক পর্যায়ে পুলিশ তাদের (মাদ্রাসা ছাত্র) ছত্রভঙ্গ করতে গু’লি ছুঁড়লে বেশ কয়েকজন গু’লিবিদ্ধ হন। তাদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এদের মধ্যে তিন ছাত্র ও একজন পথচারীসহ চারজন নি’হত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে চমেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁ’ড়ির এএসআই আলাউদ্দীন তালুকদার। তিনি জানান, সংঘ’র্ষের ঘটনায় আহত অনেককে হাসপাতালে আনা হয়। এর মধ্যে বিভিন্ন ওয়ার্ডে ভর্তি হওয়া চারজনকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক।

নি’হতরা হলেন- হাটহাজারী মাদ্রাসার ছাত্র কুমিল্লা জেলার মো. রবিউল ইসলাম, মাদারীপুর জেলার মো. মেহরাজুল ইসলাম, ময়মনসিংহ জেলার মো. আব্দুল্লাহ মিজান এবং পথচারী হাটহাজারী উপজেলার মো. জসিম। এমপি ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ বলেন, এটি একটি অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা। এ ঘটনায় যারা মৃত্যুবরণ করেছে তাদের জন্য আমি দুঃখ প্রকাশ করছি। এছাড়া বিষয়টি নিয়ে হাটহাজারী মাদ্রাসার শিক্ষা পরিচালক ও হেফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী সঙ্গে কথা হয়েছে। ওনি চট্টগ্রামের পটিয়া থেকে হাটহাজারীতে আসলে আমরা এ ব্যাপারে আলোচনায় বসবো।

প্রবাসী প্রেমিকের কোটি টাকা মেরে খেলেন ‘লাইকি গার্ল’ ফৌজিয়া

0

শেয়ারিং অ্যাপ লাইকিতে পরিচয়। সে সুবাদে গড়ে ওঠে বন্ধুত্ব। কিছুদিন পর সেই বন্ধুত্ব গড়ায় প্রেমের সম্পর্কে। এরপর থেকেই প্রেমিকের কাছে বিভিন্ন ধরনের বায়না ধরেন প্রেমিকা। আর প্রেমিকও সুন্দরী প্রেমিকার বায়না মেটাতে উঠেপড়ে লাগেন। ধার দেন নিজের ঘাম ঝরানো পরিশ্রমের সোয়া এক কোটি টাকা। শেষমেশ সেই ধারের টাকাই কাল হয়ে দাঁড়ায়। প্রেমিকার কাছে টাকা চাইলেই সম্পর্কে ফাটল ধরে। টাকা না পেয়ে নিরুপায় হয়ে আ’ত্মহ’ত্যার পথ বেছে নেন মোজাম্বিক প্রবাসী মিজানুর রহমান নীল।

১০ মার্চ বেলা ১১টায় দেশটির তেতে প্রদেশের স্থানীয় একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান মিজানুর। তিনি চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলার পূর্ব কাহারঘোনা এলাকার সিদ্দীক আহাম্মেদের ছেলে। জানা গেছে, লাইকি সূত্রে চট্টগ্রাম নগরীর হালিশহর এলাকার কলেজছাত্রী ফৌজিয়া আনোয়ারের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক জড়ান মিজানুর। পাশাপাশি অনলাইনে সম্পর্ক গড়ে ওঠে পতেঙ্গার ঐশী মির্জা নামে এক পার্লার ব্যবসায়ীর সঙ্গেও। আবদার মেটাতে বিভিন্ন সময় মোবাইল ব্যাংকিং ও ব্যাংকের মাধ্যমে তাদের টাকা ধার দেন মিজানুর।

কিন্তু সেই টাকা ফেরত চাইলেই তাদের সম্পর্কে ভাটা পড়ে। এ ঘটনায় চাপ নিতে না পেরে ঐশী মির্জাকে লাইকিতে লাইভে রেখে কীটনাশক পান করেন তিনি। হাসপাতালে নেয়ার কিছুক্ষণ পর তার মৃ’ত্যু হয়।

মিজানের বড় ভাই প্রবাসী মো. ওমর কাজী বলেন, আমরা চার ভাই মোজাম্বিকে রয়েছি। এখানে আমরা ব্যবসা করি। ২০১৪ সালে ছোট ভাই মিজানুরকে এখানে নিয়ে আসি। ব্যবসার হিসাব ও টাকা-পয়সা তার কাছে ছিল। এমন একটা ঘটনা ঘটে যাবে আমরা ভাবিনি।

তিনি বলেন, মিজানুরের হিসাবে প্রায় ১ কোটি ২৫ লাখ টাকা আমরা গরমিল পাচ্ছি। ধারণা করছি প্র’তারকদের পেছনে টাকাগুলো খরচ করেছে সে। এছাড়া এ ব্যাপারে আমরা মোজাম্বিক পুলিশের সহযোগিতা নিচ্ছি। মূল প্রতারকদের আইনের আওতায় আনতে দুই দেশের পুলিশ কাজ শুরু করেছে। মিজানের ব্যবহৃত মোবাইল ফোনও দেশে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে, এ বিষয়ে ফৌজিয়া আনোয়ার কিংবা ঐশী মির্জা কারো বক্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে যা বলার আদালতে বলবেন বলে মুঠোফোনে জানান ফৌজিয়া আনোয়ার।

পাঁচ বিভাগে কালবৈশাখী ঝড়ের আশঙ্কা

0

ফাল্গুন বিদায় নিয়ে না নিতে চৈত্র মাস চলে এলেও দেশের কোথাও এখন পর্যন্ত কালবৈশাখীর দাপট কিংবা ঝুম বৃষ্টি খুব একটা দেখা যায়নি। তবে আজ সোমবার ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং ঢাকা, চট্টগ্রাম, সিলেট, ময়মনসিংহ ও রংপুর বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে ঝড়ো হাওয়া বা কালবৈশাখীসহ বৃষ্টি এবং বজ্রবৃষ্টি হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।সোমবার (২৯ মার্চ) সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে এ তথ্য জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর।

আবহাওয়া অধিদফতর বলছে, পাঁচ বিভাগের ওই দু একটি জায়গা ছাড়া দেশের অন্যত্র অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। এছাড়া ঢাকা, ফরিদপুর, চাঁদপুর, রাজশাহী, যশোর ও কুষ্টিয়া অঞ্চলসহ সিলেট বিভাগের ওপর দিয়ে মৃদু তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে।

এছাড়া সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে এবং রাতের তাপমাত্রা সামান্য বাড়তে পারে। এছাড়া আগামী ৩ দিনে ফের তাপমাত্রা বাড়তে পারে বলেও জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।পশ্চিমা লঘুচাপের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে।

অ’স্ত্র-ইয়া’বার বিনিময় মূল্য হয়ে উঠেছে সোনার বার

0

অ’স্ত্র ও ই’য়াবার বিনিময় মূল্য হিসাবে ব্যবহৃত স্বর্ণ পাচারের নিরাপদ রুট এখন চট্টগ্রামের শাহ আমানত বিমান বন্দর। আন্তর্জাতিক চক্র দুবাই ও ভারত থেকেই নিয়ন্ত্রণ করছে বাংলাদেশের স্বর্ণের চোরাচালান। অভিযোগ উঠেছে স্বর্ণ পাচারের ক্ষেত্রে বিমানের কর্মকর্তাদের সম্পৃক্ততার। তবে নানা জটিলতায় বিদেশি মূল হোতাদের শনাক্ত করা না গেলেও দেশীয় এজেন্টদের অনুসন্ধান শুরু করেছে পুলিশ।

বৈধ ও অবৈধ দুই পথেই চট্টগ্রামে আসছে সোনার বড় বড় চালান। সোমবার আবুধাবী থেকে আসা বাংলাদেশ বিমানের ফ্লাইট থেকে উদ্ধার করা হয়েছে ১৫০ সোনার বার। এর আগে গত অক্টোবর মাসেই ২৫০ পিসের সোনার বড় দু’টি চালান ধরা পড়েছিল। আর ২০১৯ সালে জব্দ করা হয় ১৯৩ কেজি সোনার বার। দুবাইভিত্তিক শক্তিশালী সিন্ডিকেট চট্টগ্রামকে রুট হিসাবে ব্যবহারের চেষ্টা করছে বলে তথ্য কাস্টমসের। চট্টগ্রাম কাস্টম হাউজের উপ-কমিশনার রোকশানা খাতুন বলেন, আমরা গত কয়েকদিনে দুটি চালান আটক করেছি। এতে বোঝা যায় শাহ আমানত বিমানবন্দরকে চোরাচালানের রুট হিসেবে ব্যবহার করছে।

শুধুই যে অবৈধ পথে স্বর্ণ আসছে তা নয়, শাহ আমানত বিমান বন্দরে গত চার মাসে বৈধ করা হয়েছে ৪ মেট্রিক টনের বেশি সোনার বার। কিন্তু এসব সোনা বাংলাদেশের অলংকারের বাজারে যাচ্ছে না। শুল্ক গোয়েন্দা কর্তৃপক্ষের উপ-পরিচালক বাবুল ইকবাল বলেন, মূলত অস্ত্র এবং ইয়াবার মতো মাদকের বিনিময় মূল্য হিসাবেই ব্যবহার করা হচ্ছে এসব সোনা। এগুলো কোথায় যাচ্ছে সেটা বের করার চেষ্টা চলছে।

অ’স্ত্র ও ই’য়াবার বিনিময় হিসাবে সোনার বার ব্যবহারের অভিযোগ ওঠায় নতুন করে অনুসন্ধানে নামছে পুলিশ। সিএমপি উপ-কমিশনার মিলন মাহমুদ বলেন, সোনা অস্ত্র বা মাদকের বিনিময় হিসেবে চিহ্নিত হয়, বিষয়টি ইতোমধ্যে আমাদের নজরে এসেছে।

গোয়েন্দা সূত্র মতে, মধ্যপ্রাচ্যের আরব আমিরাতের দুবাই এবং আবুধাবি থেকেই সোনার চালানগুলো বাংলাদেশে আসছে। এসব চালানের গন্তব্য প্রতিবেশী দেশ ভারত।

আক্কেলপুরে গৃ’হবধুর লা’শ উ’দ্ধা’র

জয়পুরহাটের আক্কেলপুরে মেহেরুন নেছা ওরফে বুলবুলি (২০) নামের এক গৃহবধুর মরদেহ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। এ ঘটনায় মেয়ের মা ছামছুন নাহার বেগম বাদী হয়ে থানায় আত্মহত্যায় প্ররোচনার মামলা দায়ের করলে স্বামী রাকিবুলকে আটক করেছে পুলিশ। ঘটনাটি উপজেলার রায়কালী ইউনিয়নের বালুকাপাড়া গ্রামে ঘটেছে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, এক বছর পূর্বে উপজেলার তিলকপুর ইউনিয়নের ভাটকুড়ি গ্রামের আব্দুল মালেকের মেয়ে বুলবুলির সাথে উপজেলার রায়কালী ইউনিয়নের বালুকাপাড়া গ্রামের মাজেদুর ইসলামের পুত্র রাকিবুল ইসলামের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই বিভিন্ন বিষয়ে দন্দ্ব কলহ লেগেই থাকে। স্বামী, দেবর, শাশুড়ি বিভিন্ন সময় তার উপর শারীরিক এবং মানষিক অত্যাচার করে আসছে। এর জের ধরে গত রবিবার বিকালে নিজ শয়ন কক্ষে মেহেরুন নেছা ওরফে বুলবুলি আত্মহত্যা করেছে বলে তার বাবার বাড়িতে খবর দেয় শ্বশুর বাড়ির লোকজন। খবর পেয়ে রবিবার রাতে ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়েছে পুলিশ।

এ বিষয়ে নিহতের মামা আবুল কালাম আজাদ বলেন, ‘আমার ভাগ্নিকে বিয়ের পর থেকেই নানা অজুহাতে তার শশুড় বাড়ির লোকজন অত্যাচার করতো। আমার কাছে এটি একটি পরিকল্পিত হত্যা বলে মনে হয়েছে। এর সুষ্ঠু বিচার চাই’।

থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল লতিফ খান বলেন, ‘ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। এঘটনায় তার স্বামী রাকিবুলকে আটক করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে সে আত্মহত্যা করতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে, ময়না তদন্তের রিপোর্ট এলে বিষয়টি পরিষ্কার হবে’।

করোনা সংক্রমণ রোধে ১৮ নির্দেশনা, জনসমাগম নিষিদ্ধ

0

করোনাভাইরাস মহামারির দ্বিতীয় ঢেউ ও সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে সরকারের পক্ষ থেকে ১৮ দফা নির্দেশনা জারি করা হয়েছে। একইসাথে বেশি সংক্রমিত এলাকায় জনসমাগম নিষিদ্ধসহ রাত ১০টার পর প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বাইরে বের না হতেও বলা হয়েছে। সোমবার (২৯ মার্চ) প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে এমন নির্দেশনা জারি করা হয়।

নির্দেশনাগুলো হল:-
ক) সকল ধরনের জনসমাগম (সামাজিক/ রাজনৈতিক/ ধর্মীয়! অন্যান্য) সীমিত করতে হবে। উচ্চ সংক্রমণযুক্ত এলাকায় সকল ধরণের জনসমাগম নিষিদ্ধ করা হলো। বিয়ে/ জন্মদিনসহ যে কোন সামাজিক অনুষ্ঠান উপলক্ষ্যে জনসমাগম নিরুৎসাহিত করতে হবে;

খ) মসজিদসহ সকল ধর্মীয় উপাসনালয়ে যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি পরিপালন নিশ্চিত করতে হবে;

গ) পর্যটন/ বিনোদন কেন্দ্র সিনেমা হল/ থিয়েটার হলে জনসমাগম সীমিত করতে হবে এবং সকল ধরনের মেলা আয়োজন নিরুৎসাহিত করতে হবে;

ঘ) গণপরিবহনে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে এবং ধারণ ক্ষমতার ৫০ ভাগের অধিক যাত্রী পরিবহন করা যাবে না;

ঙ) সংক্রমণের উচ্চ ঝুঁকিপূর্ণ এলাকাতে আন্তঃজেলা যান চলাচল সীমিত করতে হবে; প্রয়োজনে বন্ধ রাখতে হবে;

চ) বিদেশ হতে আগত যাত্রীদের ১৪ দিন পর্যন্ত প্রাতিষ্ঠানিক (হোটেলে নিজ খরচে) কোয়ারেন্টিন নিশ্চিত করতে হবে;

ছ) নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যসামগ্রী খোলা/ উন্মুক্ত স্থানে স্বাস্থ্যবিধি পরিপালনপূর্বক ক্রয়-বিক্রয়ের ব্যবস্থা করতে হবে; ওষুধের দোকানে যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা নিশ্চিত করতে হবে;

জ) স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠানসমূহ মাস্ক পরিধানসহ যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি পরিপালন নিশ্চিত করতে হবে;

ঝ) শপিং মলে ক্রেতা-বিক্রেতা উভয়েরই যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা নিশ্চিত করতে হবে;

ঞ) সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান (প্রাক-প্রাথমিক, প্রাথমিক, মাদ্রাসা, মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, বিশ্ববিদ্যালয়) ও কোচিং সেন্টার বন্ধ থাকবে;

ট) অপ্রয়োজনীয় ঘোরাফেরা/ আড্ডা বন্ধ করতে হবে। জরুরি প্রয়োজন ছাড়া রাত ১০ টার পর বাইরে বের হওয়া নিয়ন্ত্রণ করতে হবে;

ঠ) প্রয়োজনে বাইরে গেলে মাক্ক পরিধানসহ সকল ধরণের স্বাস্থ্যবিধি পরিপালন নিশ্চিত করতে হবে। মাস্ক পরিধান না করলে কিংবা স্বাস্থ্যবিধি লঙ্ঘিত হলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে;

ড) করোনায় আক্রান্ত/ করোনার লক্ষণযুক্ত ব্যক্তির আইসোলেশন নিশ্চিত করতে হবে। করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তির ঘনিষ্ঠ সংস্পর্শে আসা অন্যান্যদেরও কোয়ারেন্টিন নিশ্চিত করতে হবে;

ঢ) জরুরি সেবায় নিয়োজিত প্রতিষ্ঠান ছাড়া সকল সরকারি-বেসরকারি অফিস! প্রতিষ্ঠান শিল্প কারখানাসমূহ ৫০ ভাগ জনবল দ্বারা পরিচালনা করতে হবে। গর্ভবতী/ অসুস্থ/ বয়স ৫৫-উর্ধব কর্মকর্তা/ কর্মচারীর বাড়িতে অবস্থান করে কর্মসম্পাদনের ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে;

ণ) সভা, সেমিনার, প্রশিক্ষণ, কর্মশালা যথাসম্ভব অনলাইনে আয়োজনের ব্যবস্থা করতে হবে;

ত) সশরীরে উপস্থিত হতে হয় এমন যে কোন ধরণের গণপরীক্ষার ক্ষেত্রে যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি পরিপালন নিশ্চিত করতে হবে;

থ) হোটেল-রেস্তোরাসমূহে ধারণ ক্ষমতার ৫০ ভাগের অধিক মানুষের প্রবেশ বারিত করতে হবে;

দ) কর্মক্ষেত্রে প্রবেশ এবং অবস্থানকালীন সর্বদা বাধ্যতামূলকভাবে মাস্ক পরিধানসহ অন্যান্য স্বাস্থ্যবিধি পরিপালন নিশ্চিত করতে হবে।

সুয়েজ খালে আটকে পড়া জাহাজ সরেছে

মিশরের সুয়েজ খালে আড়াআড়িভাবে আটকা পড়া প্রায় ২০ হাজার কনটেইনারবাহী জাহাজ এভার গিভন প্রায় একসপ্তাহের চেষ্টার পর অবশেষে সরানো সম্ভব হয়েছে।সোমবার (২৯ মার্চ) এক ভিডিও চিত্রে দেখা গেছে, জাহাজটির পশ্চাৎভাগ খালের তীরের দিকে ঘুরে গেছে, ফলে খালের অনেকটা জায়গা অবমুক্ত হয়েছে।

এছাড়া মেরিটাইম সার্ভিস কোম্পানি ইঞ্চকেপও জানিয়েছে, জাহাজটি মুক্ত করা হয়েছে। সপ্তাহখানেক আগে সুয়েজ খালে আড়াআড়িভাবে আটকে পড়ে কনটেইনারবাহী জাহাজটি।ছয় দিনেও সরানো সম্ভব না হওয়ায় ৩০০ এর বেশি জাহাজের জট তৈরি হয় বিশ্বের অন্যতম ব্যস্ত নদীপথটির দুই প্রান্তে।

বিবিসি জানায়, শনিবার ভরা জোয়ারেও এমভি এভার গিভেন জাহাজটি সরানোর চেষ্টা ব্যর্থ হয়। অবশেষে রোববার সরানো সম্ভব হয়। লোহিত সাগরের সঙ্গে ভূমধ্যসাগরকে যুক্ত করা বিশ্বের অন্যতম ব্যস্ত এই বাণিজ্যপথ বন্ধ করে আড়াআড়ি আটকে ছিল জাহাজটি।

ব্যস্ত বাণিজ্যপথ হওয়ায় খুব তৎপরতা ছিল জাহাজটি সরানোর। কয়েকদিনের চেষ্টা হলে রোববার খাল কর্মকর্তারা বিশাল জাহাজটির প্রায় ২০ হাজার কনটেইনারের মধ্যে কিছু নামানোর প্রস্তুতি শুরু করেন। জাহাজটির লোড কমানোই সিদ্ধান্ত হয় শেষপর্যন্ত।

এর আগে বিশেষজ্ঞরা বিবিসিকে বলেছিলেন, এ ধরনের অপারেশনে বিশেষজ্ঞ সরঞ্জাম আনতে হবে, যার মধ্যে একটি ক্রেনও থাকতে হবে, যেটি আবার ২০০ ফুটেরও উঁচু হতে হবে। এমনকি কয়েক সপ্তাহ সময় লাগতে পারে বলেও জানিয়েছিলেন বিশেষজ্ঞরাএশিয়া ও ইউরোপের মধ্যে সংক্ষিপ্ততম জলপথ হলো সুয়েজ খাল। ১৯৩ কিলোমিটার দীর্ঘ এই জলপথে তিনটি প্রাকৃতিক হ্রদ আছে।

‘ওয়াজ মাহফিল, বিয়ে ও রেস্টুরেন্টে খাওয়া-দাওয়া সীমিত করার প্রস্তাব দিয়েছি’

0

বিনোদন কেন্দ্রসহ জনসমাগম যেখানে বেশি হয় সেসব স্থান বন্ধ করে দেয়াসহ আংশিক লকডাউনের সিদ্ধান্ত আসতে পারে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক এমপি। সোমবার (২৯ মার্চ) রাজধানীর হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বর্ধিত অংশ উদ্বোধনকালে ভার্চুয়ালি অংশ নিয়ে তিনি এ-কথা বলেন। মন্ত্রী বলেন, ‘করোনা সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি নিয়ন্ত্রণে বেশি সংক্রমিত এলাকায় আংশিক লকডাউন দিতে পরামর্শ দিয়েছি, যা দ্রুত সিদ্ধান্ত হতে পারে।’

তিনি বলেন, ‘বিনোদন কেন্দ্রগুলো বন্ধ রাখার প্রস্তাব দেয়া হয়েছে। ওয়াজ মাহফিল, বিয়ে ও রেস্টুরেন্টে খাওয়া-দাওয়া সীমিত করার প্রস্তাব দিয়েছি। হোম অফিসের পরামর্শ দেয়া হয়েছে।’ তিনি বলেন, মাস্ক পরাতে কড়াকড়ি করতে বলা হয়েছে। বেশি সংক্রমিত এলাকায় আংশিক লকডাউন দিতে পরামর্শ দিয়েছি। দুই-এক দিনের মধ্যেই এ নিয়ে সিদ্ধান্ত সরকারিভাবে এসে যাবে।

বিনোদন কেন্দ্রসহ জনসমাগম যেখানে বেশি হয় সেসব স্থান বন্ধ করে দেয়াসহ আংশিক লকডাউনের সিদ্ধান্ত আসতে পারে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক এমপি। সোমবার (২৯ মার্চ) রাজধানীর হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বর্ধিত অংশ উদ্বোধনকালে ভার্চুয়ালি অংশ নিয়ে তিনি এ-কথা বলেন। মন্ত্রী বলেন, ‘করোনা সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি নিয়ন্ত্রণে বেশি সংক্রমিত এলাকায় আংশিক লকডাউন দিতে পরামর্শ দিয়েছি, যা দ্রুত সিদ্ধান্ত হতে পারে।’

তিনি বলেন, ‘বিনোদন কেন্দ্রগুলো বন্ধ রাখার প্রস্তাব দেয়া হয়েছে। ওয়াজ মাহফিল, বিয়ে ও রেস্টুরেন্টে খাওয়া-দাওয়া সীমিত করার প্রস্তাব দিয়েছি। হোম অফিসের পরামর্শ দেয়া হয়েছে।’ তিনি বলেন, মাস্ক পরাতে কড়াকড়ি করতে বলা হয়েছে। বেশি সংক্রমিত এলাকায় আংশিক লকডাউন দিতে পরামর্শ দিয়েছি। দুই-এক দিনের মধ্যেই এ নিয়ে সিদ্ধান্ত সরকারিভাবে এসে যাবে।

বিনোদন কেন্দ্রসহ জনসমাগম যেখানে বেশি হয় সেসব স্থান বন্ধ করে দেয়াসহ আংশিক লকডাউনের সিদ্ধান্ত আসতে পারে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক এমপি। সোমবার (২৯ মার্চ) রাজধানীর হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বর্ধিত অংশ উদ্বোধনকালে ভার্চুয়ালি অংশ নিয়ে তিনি এ-কথা বলেন। মন্ত্রী বলেন, ‘করোনা সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি নিয়ন্ত্রণে বেশি সংক্রমিত এলাকায় আংশিক লকডাউন দিতে পরামর্শ দিয়েছি, যা দ্রুত সিদ্ধান্ত হতে পারে।’

তিনি বলেন, ‘বিনোদন কেন্দ্রগুলো বন্ধ রাখার প্রস্তাব দেয়া হয়েছে। ওয়াজ মাহফিল, বিয়ে ও রেস্টুরেন্টে খাওয়া-দাওয়া সীমিত করার প্রস্তাব দিয়েছি। হোম অফিসের পরামর্শ দেয়া হয়েছে।’ তিনি বলেন, মাস্ক পরাতে কড়াকড়ি করতে বলা হয়েছে। বেশি সংক্রমিত এলাকায় আংশিক লকডাউন দিতে পরামর্শ দিয়েছি। দুই-এক দিনের মধ্যেই এ নিয়ে সিদ্ধান্ত সরকারিভাবে এসে যাবে।